Sale!

ইতিহাসের স্বর্ণবিন্দু

৳ 120.00

Description

ইতিহাসের স্বর্ণবিন্দু

ইতিহাসের শিক্ষাসিরিজ ১
লেখক : মুহাম্মাদ আতীক উল্লাহ
প্রকাশনী : মাকতাবাতুল আযহার
বিষয় : ইসলামি ইতিহাস ও ঐতিহ্য

আমরা তিনভাবে ইতিহাস-চর্চা করতে চাই। করার চেষ্টাও করি। নিয়মিত। অনিয়মিত।
১: ছোট ছোট পরিসরে, খন্ডিত রূপে। ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়গুলো পড়া ও চর্চা করা।
২: ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ বাঁকগুলোকে আলাদা করে, পড়া ও চর্চা করা। তা থেকে শিক্ষা উঠিয়ে আনা।
৩: ধারাবাহিকভাবে গৎবাঁধা ধারায় ইতিহাস চর্চা করা।
বক্ষ্যমাণ বইটা দ্বিতীয় প্রকারের প্রথম খন্ড।
ইনশাআল্লাহ।
আলহামদুলিল্লাহ।

বইয়ের কিছু অংশ…

“যখন আমরা মুসলমান ছিলাম”
এক
খালিদ বিন ওয়ালিদ (রা.) পারস্য- সম্রাট কিসরার কাছে চিঠি পাঠালেন, – ইসলাম গ্রহন করো, নিরাপদ থাকবে। না হয় এমন কিছু লোক নিয়ে তোমার ওপর চড়াও হবো, যারা মৃত্যকে ভালোবাসে, ঠিক যেমনটা তোমরা জীবনকে ভালবাসো।
কিসরা এই চিঠি পড়ে, তার ঘনিষ্ঠ মিত্র চীন- সম্রাটের কাছে সাহায্য চাইল।
উত্তর দিলেন,
-তাদের মোকাবেলা করার মতো আমার কাছে শক্তি-সাহস কোনটাই নেই। আমি তাদেরকে চিনি। তারা তো এমন জাতি, যদি তার চায় পাহাড়কে নিজ স্থান থেকে সরিয়ে দিবে, তাও পারবে।
দুই
উসমানী খিলাফতকালে, মুসলিম জাহাজগুলো বিশ্বের সমস্ত বন্দরে নির্বিঘন্নে ঘুরে বেড়াতো। ইউরোপের সমস্ত জাহাজ সসম্মানে মুসলিম জাহাজগুলোকে চলাচলের সুযোগ করে দিত। তাদের সামনে ভেঁপু বাজাত না। উসমানী জাহাজগুলো যখন ইউরোপের কোন শহরের পাশ দিয়ে যেত, শহরের গির্জাগুলোতে ঘন্টা বাজানো বন্দ রাখা হতো। তাদের অশংকা ছিল,
-যদি মুসলমানরা রাগ করে তাদের শহর দখল করে বসে!
ইতিহাসের স্বর্ণবিন্দু – পৃষ্ঠা ৫৪,৫৫।

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “ইতিহাসের স্বর্ণবিন্দু”

Your email address will not be published. Required fields are marked *